News Narayanganj
Bongosoft Ltd.
ঢাকা মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর, ২০২২, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

নিজেদের অন্তঃকোন্দলের কারণেই ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় নেতাদের উপর হামলা


দ্যা নিউজ নারায়ণগঞ্জ ডটকম প্রকাশিত: নভেম্বর ২৪, ২০২২, ০৮:০৩ পিএম নিজেদের অন্তঃকোন্দলের কারণেই ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় নেতাদের উপর হামলা

নিজেদের মধ্যে অন্তকোন্দলের কারণেই আড়াইহাজারে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় নেতাদের উপর হামলা হয়েছে। সেই সাথে এই ঘটনার সাথে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে ছাত্রলীগকে জড়িয়ে মিথ্যা অপপ্রচার করা হচ্ছে বলে দাবী করেছেন আড়াইহাজার উপজেলা ছাত্রলীগ।

বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) দুপুরে আড়াইহাজার উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই দাবি করেন। আড়াইহাজার উপজেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শরীফুল ইসলাম বলেন, ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় নেতাদের উপর হামলার ঘটনাকে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে আমাদের উপর দোষ চাপানো হচ্ছে। প্রকৃত ঘটনা হচ্ছে-তারা বাঞ্চারামপুর থেকে আড়াইহাজার হয়ে ঢাকার দিকে যাওয়ার পথে রামচন্দ্রদী এলাকায় একটি অটোরিকশাকে ধাক্কা দেয়। তখন সেখানকার রিকশাওয়ালা সহ আরও অনেক লোকজন মিলে তাদের পিছন থেকে ধাওয়া করে। ধাওয়া খেয়ে আসার পথে সদর বাজার এলাকায় জ্যাম থাকার কারণে তাদের ধরে ফেলে এবং তাদের চিনতে না পেরে মারধর করে। আমি তখন চিৎকার চেঁচামেচি শুনে কার্যালয় থেকে বের হয়ে দেখি কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক সাইফ মাহমুদ জুয়েল ভাইকে মারধর করা হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, আমি তাকে চিনতে পেরে সম্মানের সাথে তাকে সেখান উদ্ধার করে কার্যালয়ে নিয়ে আসি। পরে তার কথামতো একটি প্রাইভেটকারে করে নিরাপদের সাথে ভুলতা পর্যন্ত পৌঁছিয়ে দিয়ে আসি। আমি তাকে বাঁচাতে গিয়েছিলাম। কিন্তু এখন আমাকেই দোষারোপ করা হচ্ছে। রুহুল কবির রিজভী সাহেব মিথ্যা বানোয়াট কথা বলে ছাত্রলীগের উপর দিয়ে দেয়। বিএনপির কাজই হচ্ছে কোনো ঘটনা ঘটলেই ছাত্রলীগের উপর চাপিয়ে দেয়া। আমরা এগুলোর তীব্র প্রতিবাদ জানাই। আমাদের নেতা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু। তিনি আমাদের কখনও শিক্ষা দেননি ছাত্রলীগ আমাদের শিক্ষা দেয়নি কারও গায়ে হাত তুলতে হবে। আড়াইহাজার ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের সাথে আমাদের কখনও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।

শরীফুল ইসলাম বলেন, আড়াইহাজার বিএনপি কয়েকভাগে বিভক্ত। এখানের নেতৃত্ব দেয় আঙ্গুর, সুমন, আজাদ, অনু ও পারভীন। তাদের মধ্যেই দ্বন্দ্ব রয়েছে। ছাত্রদলের কমিটি নিয়ে তারা ব্যবসা করে। তাদের অন্তঃকোন্দলের কারণেও এই ঘটনা ঘটতে পারে। এমনও হতে পারে এটা বিএনপির কারসাজি। যারা হামলা করেছে তাদের মধ্যে বিএনপির নেতাকর্মী থাকতে পারে।

উপস্থিত ছিলেন আড়াইহাজার উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. সাদ্দাম হোসেন, সরকারী সফর আলী কলেজের সাবেক ভিপি কাজী সুজন ইকবাল, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো, দেলোয়ার হোসেন, সাবেক আহবায়ক কাজী রাজীবুল ইসলাম জুয়েল, সাবেক যুগ্ম আহবায়ক মো. এমদাদুল হক মিলন ও সরকারী সফর আলী কলেজের ভিপি নিহাদুল ইসলাম রাজু সহ অন্যান্য নেতাকর্মীরা।

এর আগে গত ২৩ নভেম্বর বিকেলে আড়াইহাজার উপজেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ের সামনে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় নেতাদের উপড় হামলার ঘটনা ঘটে। আর এই হামলার অভিযোগ উঠেছিল স্থানীয় আওয়ামীলীগ, ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে।

আড়াইহাজার উপজেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কামাল হোসেন বলেছিলেন, স্থানীয় ছাত্রলীগ ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা হামলা করে আমাদের কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক সাইফ মাহমুদ জুয়েল সহ অন্যান্য নেতাকর্মীদের উপর।  উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শরীফ প্রথমে তাদের উপর হামলা করে। পরে আবার তাকে আওয়ামীলীগ কার্যালয়ের ভেতরে নিয়ে মারধর করে রক্তাক্ত আহত করা হয়।

Islams Group
Islam's Group