News Narayanganj
Bongosoft Ltd.
ঢাকা মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর, ২০২২, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

নারায়ণগঞ্জের দুটি আসনে চমক থাকবে


দ্যা নিউজ নারায়ণগঞ্জ ডটকম | স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট প্রকাশিত: নভেম্বর ২৩, ২০২২, ১০:৪৯ পিএম নারায়ণগঞ্জের দুটি আসনে চমক থাকবে

নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির নতুন আহবায়ক কমিটি ঘোষিত হওয়ায় সোনারগাঁ ও আড়াইহাজার বিএনপিতে চমক থাকবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। সেই সাথে সোনারগাঁ ও আড়াইহজার বিএনপিতে থাকবে না একচ্ছত্র আধিপত্য। প্রভাব খর্ব হয়ে আসবে আজহারুল ইসলাম মান্নান ও নজরুল ইসলাম আজাদের। রাজনীতির মাঠে ফিরে আসবেন একসময়ের তুখোড় রাজনীতিবিদ  নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য রেজাউল করিম ও নারায়ণগঞ্জ-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য আতাউর রহমান আঙ্গুর। সেই সাথে তাদের অনুসারীরাও নতুন উদ্যোমে জেগে উঠবেন।

দলীয় সূত্র বলছে, গত ১৫ নভেম্বর বিকেলে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির ৯ সদস্য বিশিষ্ট আহবায়ক কমিটি ঘোষণা করা হয়। আর এই কমিটিতে আহ্বায়ক হিসেবে রয়েছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন ও সদস্য সচিব হিসেবে রয়েছেন গোলাম ফারুক খোকন।

আর এই কমিটি ঘোষণা হওয়াতে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির রাজনীতি পট পরিবর্তনের সম্ভাবনা সৃষ্টি হয়েছে। এতে করে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির অনেক নেতার প্রভাব খর্ব হয়ে আসবে। সেই সাথে তাদের আর একচ্ছত্র আধিপত্যে বিস্তারের সুযোগ থাকবে না।

জানা যায়, সোনারগাঁ বিএনপিতে একচ্ছত্র আধিপত্য বিস্তার করে আসছিলেন আজাহারুল ইসলাম মান্নান। তার মতের বাইরে কাউকেই বিএনপির কমিটিতে রাখা হয়নি। কমিটি থেকে বাদ পড়ে যায় বিএনপির প্রবীণ নেতারা। যারা একসময় জেলা থেকে শুরু করে কেন্দ্র পর্যন্ত দাবড়িয়ে বেড়াতেন তারা যেন এখন মূল্যহীন হয়ে পরছেন মান্নানের কাছে। সেই সাথে অনেক কেন্দ্রীয় নেতাকেও সোনারগাঁ বিএনপির কমিটিতে মূল্যায়ন করা হয়নি। যা বিএনপির তৃণমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি করেছে।

গত ৮ অক্টোবর নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির অন্তর্ভুক্ত সোনারগাঁ বিএনপির ১০১ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়। আর এই নবগঠিত কমিটির মধ্যে সোনারগাঁ থানা বিএনপির সভাপতি হিসেবে আজহারুল ইসলাম মান্নান এবং সাধারণ সম্পাদক হিসেবে মোশাররফ হোসেন রয়েছেন।

তবে ১০১ সদস্য বিশিষ্ট এই পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে জায়গা হয়নি অধ্যাপক রেজাউল করিম কেন্দ্রীয় তাঁতী দলের সদস্য সচিব হাজী মজিবুর রহমান, কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক দলের সহ সভাপতি অধ্যাপক ওয়াহিদ বিন ইমতিয়াজ বকুল, জেলা বিএনপির সদস্য ও জেলা যুবদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শাহ আলম মুকুল ও উপজেলা যুবদলের আহ্বায়ক শহিদুর রহমান স্বপনের।

তবে এবার নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির নতুন কমিটি আসাতে মাঠে ফেরার সম্ভাবনা রয়েছে অধ্যাপক রেজাউল করিমসহ অন্যান্য নেতাদের। যাদের নেতৃত্বে সোনারগাঁ বিএনপি ও তাদের অনুসারীরা নতুন উদ্যোগে জেগে উঠবে।

রেজাউল করিম একসময়ে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি ছিলেন। সেই সাথে তিনি ১৯৯১ সালের পঞ্চম, ১৯৯৬ সালের ষষ্ঠ, ১৯৯৬ সালের সপ্তম এবং ২০০১ সালের অষ্টম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির দলীয় প্রতীকে জয়লাভ করে নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য হিসেবে দায়িত্ব লাভ করেছেন। পাশাপাশি ২০০৩ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। সে হিসেবে তিনি বিএনপির একজন প্রভাবশালী নেতা ছিলেন। তবে সোনারগাঁ বিএনপিতে তার কোনো মূল্যায়ন দেয়া হতো না।

এদিকে আড়াইহাজার বিএনপিতে একচ্ছত্র আধিপত্য বিস্তার করে আসছিলেন বিএনপির সহ আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক নজরুল ইসলাম আজাদ। যিনি নিজেকে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির নিয়ন্ত্রক হিসেবে দাবি করতেন। আড়াইহাজার বিএনপি থেকে শুরু করে সহযোগী সংগঠনেও প্রভাব বিস্তার করে আসছিলেন। তার অনুসারী ছাড়া কাউকেই পাত্তা দিতেন না। আজাদের দাপটে আড়াইহাজার বিএনপির একসময়ের রাজপথ কাঁপানো নেতারাও চুপসে গিয়ে ছিলেন। মূল্যায়ন করা হয়নি নারায়ণগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য আতাউর রহমান আঙ্গুরকে।

অথচ নারায়ণগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য ছিলেন আতাউর রহমান আঙ্গুর। কেন্দ্রীয় বিএনপি থেকে শুরু করে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপি সব জায়গাতেই তার বেশ প্রভাব ছিল। কিন্তু বিগত অনেক বছর আতাউর রহমান আঙ্গুর নিস্ক্রিয় হয়ে পড়ে ছিলেন। একজন সংসদ সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করলেও নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপিতে তাকে মূল্যায়ন করা হতো না। সেই সাথে দলীয় কর্মসূচিতেও তার দেখা মিলত না।

তবে এবার নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির নতুন কমিটি হওয়াতে আড়াইহজার বিএনপির চমক হিসেবে আতাউর রহমান আঙ্গুর আবারও সক্রিয় অবস্থায় ফিরে আসবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। সেই সাথে তাকে আবারও নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপিতে মূল্যায়ন করা হবে। নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপিতে আবারও তার প্রভাব ফিরে আসবে। তার অনুসারীরা আবারও রাজপথে ফিরে আসবেন।

Islams Group
Islam's Group