News Narayanganj
Bongosoft Ltd.
ঢাকা মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর, ২০২২, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

চ্যালেঞ্জে ঘণ্টা বাজলো


দ্যা নিউজ নারায়ণগঞ্জ ডটকম | স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট প্রকাশিত: নভেম্বর ২৩, ২০২২, ১০:২১ পিএম চ্যালেঞ্জে ঘণ্টা বাজলো

চমক দেখালো নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির নবগঠিত আহবায়ক কমিটি। মঙ্গলবার (২২ নভেম্বর)  ছিল জেলা বিএনপির আয়োজিত বিক্ষোভ মিছিল। আহবায়ক কমিটি গঠনের পর এটিই ছিল তাদের রাজপথের প্রথম বিক্ষোভ মিছিল। এর ফলে এই দিনটি ছিল নিজেদের শক্তিমত্তা প্রদর্শন করার বড় সুযোগ। তারাও এটিকে বড় চ্যালেঞ্জ হিসেবেই নিয়ে ছিলেন। বড় সমাবেশ করে জেলা বিএনপি রীতিমতো তাক লাগিয়ে দিয়েছেন।

এদিন বিকেলে নারায়ণগঞ্জের চাষাঢ়ায় ডিআইটি এলাকায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সোনারামপুর ইউনিয়ন ছাত্রদলের সহ-সভাপতি মো. নয়ন মিয়াকে পুলিশের গুলিতে হত্যার প্রতিবাদে নেতাকর্মীরা সমাবেত হতে থাকেন। এসময় তারা নয়ন হত্যার বিচার ও খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে নারায়ণগঞ্জ ২নং রেলগেইট এলাকা থেকে মিছিলটি বের করে বঙ্গবন্ধু সড়ক প্রদক্ষিণ করে চাষাঢ়া এসে শেষ করে।

এর আগে বিক্ষোভ শুরু হওয়ার আগে থেকেই জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে নেতাকর্মীরা স্লোগান দিতে দিতে বিক্ষোভস্থলে আসতে শুরু করেন। নেতাকর্মীদের মুহুমুর্হ স্লোগানে প্রকম্পিত হতে থাকে নারায়ণগঞ্জের ডিআইটি এলাকার রাজপথ। একসময় নারায়ণগঞ্জের পুরো রাজপথ বিএনপির নেতাকর্মীদের দখলে চলে যায়।

বিক্ষোভ মিছিলকে কেন্দ্র করে হাজারো নেতাকর্মীর ঢল নামে নারায়ণগঞ্জে। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের ক্ষমতাকালে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপি থেকে এতো বড় জমায়েত আর কেউ দেখাতে পারেনি বলে মন্তব্য করেছেন অনেকেই। এককথায় রাজপথের প্রথম আন্দোলনেই বাজিমাত দেখিয়েছেন জেলা বিএনপির নবগঠিত কমিটির নেতাকর্মীরা এমনটাই মনে করছেন তৃণমূলের নেতাকর্মীরা।

অনেকে গেঞ্জি, ক্যাপ, ব্যানার, ফেস্টুন ইত্যাদি পরিধান করে মিছিলকে আরো জাকজমকপূর্ণ করে তোলেন। অনেকেই মনে করছেন ক্ষমতাসীন দলের নারায়ণগঞ্জের প্রভাবশালী এমপি শামীম ওসমান বারবার নারায়ণগঞ্জ জেলা থেকে সবার আগে ঘণ্ঠা বাজানোর কথা বলে আসছেন। এই শো-ডাউনের মাধ্যমে নারায়ণগঞ্জ বিএনপি সবার আগে ঘণ্টা বাজালো এমনই মনে করছেন অনেকেই এবং এই কমিটি যে ক্ষমতাসীন দলকে মোকাবিলা করতে শতভাগ প্রস্তুত তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

দলের নেতাকর্মীরা মনে করছেন, দীর্ঘদিন পর এতো বড় শো-ডাউন দেখলো নারায়ণগঞ্জবাসী। শত বাধা বিপত্তি সত্ত্বেও আহবায়ক কমিটির নেতাকর্মীরা বড় মিছিল করে রীতিমতো চমক সৃষ্টি করেছেন।

তাদের মতে, এই মিছিলের মাধ্যমে বিএনপির নেতাকর্মীদের মনোভাব আরো চাঙ্গা হবে। যা বিএনপির পরবর্তী আন্দোলন সংগ্রামে সকল নেতাকর্মীদের আরো জোরালো ভূমিকা রাখতে উদ্বুদ্ধ করবে।

দলীয় সূত্র মতে জানা যায়, গত ১৫ নভেম্বর নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির ৯ সদস্যবিশিষ্ট আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়। এ কমিটিতে আহবায়ক করা হয় মুহাম্মদ গিয়াসউদ্দীনকে ও সদস্য সচিব করা হয়েছে জেলা যুবদলের আহবায়ক গোলাম ফারুক খোকনকে। এতে যুগ্ম আহবায়ক করা হয়েছে মামুন মাহমুদ, মনিরুল ইসলাম রবি, শহিদুল ইসলাম টিটু, মাসুকুল ইসলাম রাজিব, লুৎফর রহমান খোকা, মোশারফ হোসেন ও জুয়েল আহমেদকে।

এই কমিটি ক্ষমতাসীন দলকে কতোটুকু সামাল দিতে পারবে তা নিয়ে ছিল যথেষ্ট সন্দেহ। এক মিছিলের মাধ্যমে বাজিমাত সৃষ্টি করে তারা সকল সন্দেহ দূর করে দিয়েছেন এমনটাই মনে করছেন অনেকেই। এদিকে এই বিক্ষোভ মিছিলের মাধ্যমে আগামী জাতীয় নির্বাচনে বিএনপি আট-ঘাট বেধেই রাজপথে নেমেছে তা আর বলার অপেক্ষা রাখছে না। বিশাল শো-ডাউনের মাধ্যমে নিজেদের শক্ত অবস্থান জানান দিলো দলটি। বিএনপির পূর্বের যেকোনো সভা-সমাবেশ বিশৃঙ্খলার পূর্ণ থাকলো এবারই প্রথম এমন সুশৃঙ্খল মিছিল করে দেখালো নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপি। অর্থাৎ গিয়াস-খোকনের নেতৃত্বাধীন দলটি বিশাল শোডাউন করার সক্ষমতা দেখিয়ে শতভাগ সফল তা বলাই চলে।

Islams Group
Islam's Group