News Narayanganj
Bongosoft Ltd.
ঢাকা মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর, ২০২২, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

মুকুল বিএনপির কেউ না


দ্যা নিউজ নারায়ণগঞ্জ ডটকম | সিটি করেসপন্ডেন্ট প্রকাশিত: নভেম্বর ২২, ২০২২, ১১:০৫ পিএম মুকুল বিএনপির কেউ না

নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির সাবেক সহ সভাপতি আতাউর রহমান মুকুল ও বন্দর উপজেলা সাবেক চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মুকুল যেন বিএনপির কেউ না। সম্প্রতি তার বিরুদ্ধে মামলা হলেও এ নিয়ে নারায়ণগঞ্জ বিএনপিতে কোনো প্রতিক্রিয়া নেই। নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর বিএনপি সহ অন্যান্য অঙ্গ সহযোগী সংগঠন সকলেই এ ব্যাপারে নিরব রয়েছেন। মামলা নিয়ে কারও মধ্যেই কোনো প্রতিক্রিয়া নেই। আগামী ১০ ডিসেম্বরকে সামনে রেখে মামলা হলেও যেন মনে হচ্ছে নারায়ণগঞ্জ বিএনপিতে কোনো ঘটনায় ঘটেনি।

সূত্র বলছে, নারায়ণগঞ্জে সিটি করপোরেশনের বন্দরে ২৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে ভাঙচুরের মামলায় সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও মহানগর বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক আতাউর রহমান মুকুলকে প্রধান আসামী করে মামলা হয়েছে। এতে ২৪ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরো ৩০ জনকে আসামী করা হয়েছে।

মামলায় মুকুল ছাড়াও বন্দর থানা যুবদলের সাবেক সাধারণ সাংগঠনিক সম্পাদক নূর মুহাম্মদ পনেছ, মুকুলের ভাই মহানগর বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক হাবিবুর রহমান দুলালকে আসামী করা হয়েছে। ইতোমধ্যে এই মামলায় গ্রেফতার করা হয়েছে নূর মোঃ পনেছ, সজিব, বুলবুল ও রাজিবকে।

মো. সোহেল নামের ছাত্রলীগ নেতা ওই মামলাটি বন্দর থানায় শনিবার ১৯ নভেম্বর দায়ের করেন। মামলায় ২৩ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের কার্যালয়ে ককটেল বিস্ফোরণ করে ভাঙচুর, মারপিট, সাধারণ জখম, অফিস কক্ষ অগ্নিসংযোগ, হুমকি, সোহেলকে মারধর, মোবাইল লুট ও ৫০ হাজার টাকা লুটের নেওয়ার অভিযোগ তোলা হয়।

তবে এই মামলায় ঘটনায় নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খান ও সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট আবু আল ইউসুফ খান টিপু এবং নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির আহ্বায়ক মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন ও সদস্য সচিব গোলাম ফারুক খোকন কেউই কোনো নিন্দা বা প্রতিবাদন জ্ঞাপন করেননি। সেই সাথে নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুবদল অথবা জেলা যুবদল কিংবা ছাত্রদল তারাও কোনো প্রতিক্রিয়া জানাননি।

তবে গত ২০ নভেম্বর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ৫৮ তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে শহরের মাসদাইর এলাকার মজলুম মিলনায়তনে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে বক্তব্য রাখতে গিয়ে নেতারা এই মামলার প্রতিবাদ জানিয়েছেন। সেই সাথে তারা এই মামলাকে মিথ্যা দাবী করে প্রত্যাহারেরও দাবী জানিয়েছেন।

বক্তব্য রাখতে গিয়ে মহানগর বিএনপির সাবেক ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সবুর খান সেন্টু বলেন, আমাদেরকে হুমকি দেয়া হচ্ছে। আওয়ামী লীগ থেকে আমাদের নেতাদেরকে গ্রেফতার করা হচ্ছে। আমাদের মহানগর বিএনপির সাবেক সহ সভাপতি বন্দর উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মুকুলের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা গায়েবী মামলা করা হচ্ছে। আমরা এই সরকারকে হুশিয়ার করে দিতে চাই প্রশাসনকে হুশিয়ার করে দিতে চাই এই মিথ্যা মামলার জন্য আপনাদেরকে কোর্টে দাঁড়াতে হবে। পুলিশ প্রশাসনের কাছে আমার দাবী যারা মিথ্যা মামলা দায়ের করেছে তাদের বিরুদ্ধে অবিলম্বে ফৌজদারি মামলা করা হোক।

নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুবদলের সাবেক সভাপতি মাকছুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ বলেন, আমরা নিন্দা জানাই পরিকল্পিতভাবে নিজেদের অফিসে নিজেরা আগুন দিয়ে নিজেদের চেয়ার উলট পালট করে সংগ্রামী নেতা আতাউর রহমান মুকুল সহ নুর মোহাম্মদ পনেছ এবং হুমায়ুন সহ আরও প্রায় ৫৮ জন আসামী করে মিথ্যা মামলা দায়ের করেছে। পনেছ সহ চারজনকে গ্রেফতার করেছে। আমরা আতাউর রহমান মুকুল ভাই সহ অন্যান্য নেতাকর্মীদের নামে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার চাই। যাদের গ্রেফতার করা হয়েছে তাদের নিঃশর্ত মুক্তি দাবী করছি।

এদিকে এই মামলায় আতাউর রহমান মুকুল সহ অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতারের দাবী জানিয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম। তিনি বলেন, অচিরেই আতাউর রহমান মুকুল সহ সকল আসামীদের গ্রেফতারের দাবী জানাই।

Islams Group
Islam's Group