News Narayanganj
Bongosoft Ltd.
ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ১৪ আশ্বিন ১৪২৯

জেলা পরিষদ নিয়ে আইভীর হতাশা প্রকাশ্যে


দ্যা নিউজ নারায়ণগঞ্জ ডটকম | স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২১, ২০২২, ১১:৩৪ পিএম জেলা পরিষদ নিয়ে আইভীর হতাশা প্রকাশ্যে

নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদে চেয়ারম্যান পদে পুনরায় মনোনয়ন থেকে বঞ্চিত হয়েছেন মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন। দলের সিনিয়র এই নেতাকে বর্তমানে আওয়ামী লীগের দক্ষিণ বলয়ের মুরুব্বী হিসেবেই বিবেচনা করা হয়। তিনি মনোনয়ন না পাওয়াতে এতদিন পুরো বলয়ে নীরব শোক পালন চললেও বাজেট অনুষ্ঠানে সরাসরি হতাশা প্রকাশ করে ফেলেন নাসিক মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী।

মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) বাজেট অধিবেশনের প্রশ্নত্তোর পর্বে মেয়র আইভী প্রশাসনের পাশাপাশি সকল শ্রেণি পেশার মানুষের নীরবতার সমালোচনা করেন। নানান অন্যায় অনিয়ম দেখেও চুপ না থেকে প্রতিবাদ করার আহবান জানান মেয়র। এমন সময় মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেনের প্রসঙ্গ তুলে আইভী বলেন, 'আমাদের এখানে জেলা পরিষদের সদ্য বিদায়ী চেয়ারম্যান আনোয়ার সাহেব উপস্থিত আছেন। আমাদের দুর্ভাগ্য তিনি এবার মনোনয়ন লাভ করতে পারেননি।' 

অধিবেশনের শেষ দিকে আনোয়ার হোসেনের প্রসঙ্গ আবার তুলে মেয়র আইভী বলেন, 'জেলা পরিষদের নমিনেশন আমাদের প্রধানমন্ত্রী দিয়েছেন। তিনি অত্যন্ত বিচক্ষণ। তার সিদ্ধান্তের বাইরে যাবার সুযোগ আমাদের কারও নেই। তাই তিনি যেই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সেটাই যথার্থ। তবে আনোয়ার সাহেব মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে আমাদের রাজনৈতিক গুরু হিসেবে আমাদের নেতৃত্ব দিয়ে যাবেন।'

এদিন বাজেট অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের বেশ কয়েকজন নেতা উপস্থিত ছিলেন। যাদের সকলেই দক্ষিণ বলয়ের নেতৃবৃন্দ হিসেবে পরিচিত। আনোয়ার হোসেন এবং মেয়র আইভীর বক্তব্যের প্রেক্ষিতে তাদের তেমন কিছু বলতে দেখা যায়নি। তবে উপস্থিত অনেকেই আনোয়ার হোসেনের সাথে কুশল বিনিময় এবং জেলা পরিষদের নানান বিষয় নিয়ে আলাপ আলোচনা করেন। জেলা পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবার কিছুদিন পরেই তাকে প্রশাসকের পদ ত্যাগ করে নতুন চেয়ারম্যানের হাতে দায়িত্ব হস্তান্তর করতে হবে তাকে।

দলীয় সূত্র বলছে, এতদিন আনোয়ার হোসেনের মনোনয়ন না পাওয়ার বিষয়টি বেশ পীড়া দিচ্ছিল সকলকে। কিন্তু তা নিয়ে খোলাখুলি কথা বলতে চাননি কেউই। নিজ থেকে মুখ খুলতেও নারাজ ছিলেন অনেকে। এরই মাঝে দক্ষিণ বলয়ের প্রধান হিসেবে বিবেচিত মেয়র আইভী নিজ মুখেই বলে দিলেন আনোয়ার হোসেনকে নিয়ে নিজেদের মানসিক অবস্থার কথা। আর সেই কারণেই আনোয়ার হোসেনের মনোনয়ন না পাওয়াকে দুর্ভাগ্য হিসেবে মন্তব্য করেন আইভী।

গত ১০ সেপ্টেম্বর জেলা পরিষদ নির্বাচনে চন্দন শীলকে মনোনয়ন দেয়ার পরপরেই নারায়ণগঞ্জ শহরের রাজনৈতিক হাওয়া যেন বদলে যায়। আনোয়ার হোসেনের বদলে চন্দন শীলের মনোনয়ন লাভ রাতারাতি বদলে দেয় আওয়ামী লীগের বলয় ভিত্তিক রাজনীতি। টানা হতাশায় নিমজ্জিত হয়ে থাকা উত্তর বলয় হয়ে উঠে উচ্ছ্বাসিত। শামীম ওসমানসহ কমিটি থেকে বাদ পরা নেতারা এতদিন হায় হুতাশ করলেও চন্দন শীলের মনোনয়নে আবারও জেগে উঠেন তারা।

তৃণমূলের কর্মীরা বলছেন, সিটি নির্বাচনের পর থেকে রাজনীতিতে চালকের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছিল দক্ষিণ বলয়। কিন্তু চন্দন শীলের মনোনয়নে সেই অবস্থানে ফাটল ধরেছে। আনোয়ার হোসেন ও আইভীর নেতৃত্বে চলা বলয়ে তৈরি হয়েছে হতাশা। আর সেই হতাশার বহিঃপ্রকাশ ঘটালেন আইভী। প্রকাশ্যে মন্তব্য করে একদিকে যেমন আনোয়ার হোসেনের প্রতি নিজের অবস্থান প্রকাশ করলেন, তেমনি এই সিদ্ধান্তে তিনি যে খুশি হতে পারেননি তাও জানিয়ে দিলেন। স্পষ্ট করলেন পুরো দক্ষিণ বলয়েই তৈরি হয়েছে হতাশা। আইভী যাকে কাকা বলে ডাকেন এবং যার হাত ধরে নিজেকে এতদূর নিয়ে এসেছেন, তার জনপ্রতিনিধিত্ব চলে যাওয়াটা মেনে নিতে স্বাভাবিক ভাবেই কষ্ট হবে।

Islams Group
Islam's Group