News Narayanganj
Bongosoft Ltd.
ঢাকা শনিবার, ১০ জুন, ২০২৩, ২৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩০

ভিন্ন এক দরবারের ‘পীর সাহেব’


দ্যা নিউজ নারায়ণগঞ্জ ডটকম | স্টাফ রিপোর্টার : প্রকাশিত: মার্চ ২৮, ২০২৩, ০২:৪১ পিএম ভিন্ন এক দরবারের ‘পীর সাহেব’

কয়েক বছর আগেও বিএনপির নিচেরর সারির নেতা ছিলেন। বাসা বাবুরাইলে। কদাচিত হাত দেখতেন। কেউ কেউ ‘গনক’ হিসেবেও জানতো। নাম কাজী রুবায়েত হাসান সায়েম। কয়েক বছর আগে হঠাৎ করেই হাত দেখার বদৌলতে সম্পর্ক হয় বিদিশা এরশাদের সঙ্গে। দিন দিন সখ্যতা বাড়তে থাকে। নারায়ণগঞ্জের চেয়ে রাজধানীতে বারিধারায় বিদিশার প্রেসিডেন্ট পার্কেই ঘন ঘন যাতায়াত। এক পর্যায়ে বিদিশার সবকিছুই তিনি দেখভাল শুরু করেন। বদলে যায় সামগ্রিক পরিবেশ। বিদিশার সঙ্গে বিভিন্ন সংস্থা ও বিদেশীদের সখ্যতা থাকায় সেই সম্পর্কে ভাগ বসাতে শুরু করেন সায়েম। নিজেকে জাহির করেন অনেক গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে। পর্দার আড়ালের কুশীলবদের সঙ্গে সম্পর্ক বাড়তে থাকায় তার দরবারে মুরিদের সংখ্যাও বাড়তে থাকে। নারায়ণগঞ্জের বিএনপি ও এর সহযোগি সংগঠনের অনেকেই সেই পীরের মুরিদ বনতে থাকেন। নিয়মিত ঢু মারেন এখানকার নেতারা।

কোন নির্বাচন আসলে এ কথিত ‘পীর’ যেন আরো বেশী ব্যস্ত হয়ে পড়েন। নানা ধরনের সমীকরণের উদহারণ দেখিয়ে মনোনয়ন নিশ্চিত করা সহ অনেক কিছুর প্রলোভন দেখানো হয়। কখনো কখনো পর্দার সামনে আনা হতো বিদিশাকে। একে ওকে ম্যানেজ করে দেওয়ার নামে বিভিন্নজনের সঙ্গে টেবিল বৈঠকে আদায় করে নেওয়া হতো নানা ধরনের সুবিধা। কয়েক মাস আগেও তিনি নারায়ণগঞ্জের অতি গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের তালিকাতে নাম উঠিয়ে ফেলেন। রথিদের সঙ্গে মহারথীরাও ওই দরবারে ঢু মারা শুরু করেন।

তবে গত বছরের শেষের দিকে হঠাৎ করেই তছনছ হয়ে যায় সবকিছু। বিদিশার বিরুদ্ধে মামলা ঠুকে দেন এ সায়েম। আর সবশেষ পরিণতি হয়েছে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় গ্রেপ্তারের মধ্য দিয়ে।

২৪ মার্চ রাত সাড়ে ১০ টায় জেলা গোয়েন্দা পুলিশের সাব-ইন্সপেক্টর তরিকুল ইসলামের নেতৃত্বে পাইকপাড়ার নয়াপাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে নিজ বাসা থেকে কাজী রুবায়েত হাসান সায়েম (৪৬) নামে ওই আইনজীবীকে আটক করা হয়। সায়েম একই সঙ্গে মহানগর বিএনপির সাবেক নেতা ও বর্তমানে জাতীয় পার্টির একাংশের রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত।

জানা গেছে, রুবায়েত হাসান সায়েম নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও বিদিশা ফাউন্ডেশনের মহাসচিব।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে, ২৪ মার্চ রাতে সদর থানাধীন এলাকায় অবস্থানকালে গোপন সূত্রে খবর পাই নারায়ণগঞ্জ জেলার সদর মডেল থানাধীন পাইপাড়া নয়াপাড়া এলাকার জনৈক কাজী রুবায়েত হাসান সায়েম জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মৃত মাকে অশালীন, কুৎসিত ও কুরুচিপূর্ণ ভাষায় গালাগালি করে ভিডিও ধারণ করেছে। উক্ত গালাগালির ভিডিও মোবাইল ফোনের মাধ্যমে তার বাসার সামনে জনসাধারণকে প্রদর্শন করছে। উক্ত বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়ে সংবাদের সত্যতা যাচাই এবং আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য দ্রুত সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে গিয়ে কাজী রুবায়েত হোসেনের বাসার ২য় তলা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তার কাছ থেকে মোবাইল ফোনটিও জব্দ করা হয়।

এর আগে হুমকি ধমকি ও প্রাণনাশের অভিযোগে কাজী রুবায়েত হোসেন সায়েম গত ১ নভেম্বর ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলার আবেদন করেন। পরে আদালতের বিচারক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জেসমিন নাহার মামলাটি গ্রহণ করে সংশ্লিষ্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে সরেজমিনে গিয়ে তদন্তপূর্বক প্রতিবেদন প্রেরণের জন্য নির্দেশ প্রদান করেন।

বিএনপি দলীয় নেতাকর্মীদের সূত্রে জানা গেছে, নারায়ণগঞ্জ বিএনপির নেতাদের সাথে জাতীয় পার্টির নেতাদের সম্পর্ক অনেক দিনের। বিভিন্ন অনুষ্ঠানে জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য ও নেতাদের সাথে নারায়ণগঞ্জ বিএনপি নেতাদের বেশ ঘনিষ্টভাবেই দেখা যায়। যা নিয়ে নারায়ণগঞ্জ বিএনপিতে অনেক আলোচনা ও সমালোচনা রয়েছে।

নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির বর্তমান সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট আবু আল ইউসুফ খান টিপু ও সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী রুবায়েত হাসান সায়েম অনেকদিন ধরেই গোপনে গোপনে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের সাবেক স্ত্রী বিদিশা এরশাদের সাথে যোগাযোগ করে আসছিলেন। বিদিশার প্রতিষ্ঠিত সংগঠন বিদিশা ফাউন্ডেশনের সাথে তাদের সম্পৃক্ততা রয়েছে। কয়েকদিন পরপরই তাদের একসাথে দেখা মিলে। এরশাদের বারিধারা প্রেসিডেন্ট পার্কের বাসায় তার সাবেক স্ত্রী বিদিশা ও পুত্র এরিক এরশাদের সাথে প্রায় সময় ছবি প্রকাশ পায়।

এদিকে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ মারা যাওয়ার পর একটি সাক্ষাৎকারে বিদিশা বলেছিলেন, ‘জাতীয় পার্টিতে এখন অনেকেই আসতে চায়। আমার সঙ্গে অনেকে যোগাযোগ করছেন। অনেকে আমাকে বলেন, আপা আপনি রাজনীতিতে আসেন। আপনি সক্রিয় হোন, আমরা আপনার সঙ্গে রাজনীতি করতে চাই। আগে যখন রাজনীতিতে ছিলাম, তখন অনেক কিছু বুঝতাম না। এখন অনেক কিছুই শিখেছি।’

তার আগে ২০১৭ সালের ২৫ ডিসেম্বর নারায়ণগঞ্জ শহরের সিরাজউদৌলা সড়কে অবস্থিত ক্যাথলিক চার্চে বড়দিন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে শিশুদের নিয়ে কেক কেটেছিলেন বিদিশা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান বিদিশা সিদ্দিকী। সেসময় তার সাথে নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট আবু আল ইউসুফ খান টিপু ও সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী রুবায়েত হাসান সায়েম ছিলেন। এবার তাদের মধ্যে থেকেই একজন যিনি রুবায়েত হাসান সায়েম বিদিশাকে আসামী করে মামলা দায়ের করেছেন।

Islams Group
Islam's Group