News Narayanganj
Bongosoft Ltd.
ঢাকা সোমবার, ৩০ জানুয়ারি, ২০২৩, ১৬ মাঘ ১৪২৯

কঠিন প্রতিকূলতায় বিএনপির প্রার্থীরা


দ্যা নিউজ নারায়ণগঞ্জ ডটকম | স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট প্রকাশিত: জানুয়ারি ২৪, ২০২৩, ১০:১৬ পিএম কঠিন প্রতিকূলতায় বিএনপির প্রার্থীরা

নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির এবারের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কঠিন প্রতিকূল অবস্থায় রয়েছেন জেলা জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের মনোনীত বিএনপিপন্থী প্যানেলের আইনজীবীরা। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কোনোভাবেই যেন তাদের সমীকরণ মিলছে না। সব সমীকরণেই তাঁরা বিপরীত পক্ষের প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী প্রার্থীদের থেকে পিছিয়ে রয়েছেন। যা স্বয়ং বিএনপিপন্থী আইনজীবীরাই স্বীকার করছেন।

বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের সূত্র বলছে, নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বার্ষিক সাধারণ সভাতেই বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা পিছিয়ে গেছেন। সেদিন যে নির্বাচন কমিশন গঠন করা হয়েছে সেখানে তাদের সমর্থিত কোনো আইনজীবীকে রাখার সুযোগ পাননি বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা। অনেকটা একতরফাভাবেই নির্বাচন কমিশনে সুবিধা পেয়ে গেছেন বিপরীত পক্ষের প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী প্রার্থীরা।

একই সাথে এবারের নির্বাচনে বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের মধ্যে কোনো ঐক্যবদ্ধতা পরিলক্ষিত হচ্ছে না। তাদের সাথে বিএনপির আইনজীবীদের অভিভাবক খ্যাত অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার ও অ্যাডভোকেট আবুল কালামের কোনো প্রক্রিয়াতেই দেখা যাচ্ছে না। বরং যারা বর্তমানে বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের নেতৃত্বে তাঁরা এড়িয়ে চলছেন তাদেরকে। যা অ্যাডভোকেট তৈমূর ও অ্যাডভোকেট কালাম অনুসারীদের মধ্যে প্রভাব পড়বে।

পাশাপাশি বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের সাথে এখনও কোনো সিনিয়র আইনজীবীদের দেখা মিলছে না। প্রচারণায় দেখা মিলছে না আইনজীবী সমিতির অনেকবারের নির্বাচিত সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট আব্দুল বারী ভূঁইয়া, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট জাকির হোসেন ও জেলা আইনজীবী ফোরামের সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুল হামিদ ভাষানী, অ্যাডভোকেট বোরহান উদ্দিন ও অ্যাডভোকেট আবুল কালাম আজাদ বিশ্বাসসহ তাদের সমবয়সী অনেক আইনজীবীরা। সেই সাথে বিএনপিপন্থী অনেক সাধারণ আইনজীবীরও দেখা মিলেনি।

অন্যদিকে এবারের নির্বাচনে বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের প্যানেল নিয়েই অনেকের আপত্তি রয়েছে। প্যানেলে যারা প্রার্থী রয়েছেন তাদের অনেক বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের পছন্দের নয় সবমিলিয়ে এবারের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বেশ প্রতিকূল অবস্থার মধ্যে রয়েছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম মনোনীত বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের প্যানেল।

এ প্রসঙ্গে অ্যাডভোকেট আব্দুল হামিদ খান ভাষানী বলেন, নির্বাচনের আমাদের মধ্যে একটা সমন্বয়ের গ্যাপ রয়ে যাচ্ছে। যেটা এখন পর্যন্ত দূর হচ্ছে না। যদি এই সমন্বয়হীনতা কাটিয়ে না উঠা যায় তাহলে এবারের নির্বাচনটা আমাদের জন্য কঠিনই হয়ে যাবে। আশা করি শেষ পর্যন্ত এই সমন্বয়হীনতা থাকবে না।

জানা যায়, আগামী ৩০ জানুয়ারি নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। আর এই নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নারায়ণগঞ্জ জেলা জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম মনোনীত বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের প্যানেলের সভাপতি পদে রয়েছেন অ্যাডভোকেট আহসান হাবীব শাহীন এবং সাধারণ সম্পাদক পদে অ্যাডভোকেট এইচ এম আনোয়ার প্রধান।

সেই সাথে সিনিয়র সহ সভাপতি পদে রয়েছেন অ্যাডভোকেট মো. সুমন মিয়া, সহ সভাপতি পদে অ্যাডভোকেট মো. জুবায়ের আলম জীবন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে অ্যাডভোকেট জাহিদুল ইসলাম মুক্তা, কোষাধ্যক্ষ পদে অ্যাডভোকেট শেখ আনজুম আহম্মেদ রিফাত, আপ্যায়ন সম্পাদক পদে অ্যাডভোকেট আসমা হেলেন বিথী, লাইব্রেরী সম্পাদক পদে অ্যাডভোকেট মো রোকন উদ্দিন, ক্রীড়া সম্পাদক পদে অ্যাডভোকেট রাসেল প্রধান, সাহিত্য ও সংস্কৃতি সম্পাদক পদে অ্যাডভোকেট সারোয়ার জাহান, সমাজসেবা সম্পাদক পদে অ্যাডভোকেট মো. গোলাম সারোয়ার ও আইন ও মানবাধিকার সম্পাদক পদে অ্যাডভোকেট হাবিবুর রহমান হাবিব।

এছাড়াও সদস্য পদে রয়েছেন অ্যাডভোকেট ফাতেমা খাতুন, অ্যাডভোকেট আবুল কালাম আজাদ, অ্যাডভোকেট মো. সুমন মিয়া, অ্যাডভোকেট মো. আদনান মোল্লা ও অ্যাডভোকেট সাজিয়া আক্তার।

আদালতপাড়া সূত্র বলছে, নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির বার্ষিক নির্বাচনে গেল ৮ বছর ধরেই কান্ডারীবিহীন রয়েছে বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা। এভাবে বছরের পর বছর নারায়ণগঞ্জ আদালতপাড়ায় কর্তৃত্বহীনতার থাকার কারণে বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের অনেকেই এখন নির্বাচনে অংশ নিতেও ভয় পাচ্ছেন। গত কয়েক বছর ধরে তাঁরা নির্বাচনে অংশ নিলেও শেষ পর্যন্ত তাদেরকে নির্বাচন থেকে সরে যেতে হচ্ছে অথবা নির্বাচনে থেকে মার খেতে হচ্ছে।

সর্বশেষ নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির বার্ষিক (২০২১-২০২২) নির্বাচনে বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের ব্যাপকভাবে পিটুনি খেতে হয়েছে। আইনজীবীদের অঙ্গনে বহিরাগত এসে পিটিয়ে গেছেন। আর সেটা তাদের নীরবে সহ্য করতে হয়েছে। ফলশ্রুতিতে সমিতির নির্বাচনে বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের আগ্রহ কমে গেছে।

২০১৪ সালের পরে জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে বিএনপির কোন প্রার্থী জয়ের দেখা পায়নি। বিশেষ করে গত দুই বছর ধরে একটি পদেও বিএনপির কোনো আইনজীবী জয়ী হতে পারছে না। অথচ ২০১২ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত ৩ বারের নির্বাচনে সমিতির গুরুত্বপূর্ণ দু’টি পদে দাপুটে জয় ছিল বিএনপি সমর্থিত প্যানেলের প্রার্থীদের।

Islams Group
Islam's Group