News Narayanganj
Bongosoft Ltd.
ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ১৪ আশ্বিন ১৪২৯

আড়াইহাজারে দেশীয় অস্ত্র ও ককটেলসহ ডাকাত চক্রের ৯ সদস্য গ্রেফতার


দ্যা নিউজ নারায়ণগঞ্জ ডটকম | সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি : প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২১, ২০২২, ০৩:৪৭ পিএম আড়াইহাজারে দেশীয় অস্ত্র ও ককটেলসহ ডাকাত চক্রের ৯ সদস্য গ্রেফতার

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার থেকে দেশীয় অস্ত্র ও ককটেলসহ আন্তঃজেলা ডাকাত চক্র কাশেম বাহিনীর ৯ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১১।

মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) গভীর রাতে উপজেলার সরাবদী এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।  এসময় তাদের নিকট থেকে ৭টি ককটেল, ৩টি ছোড়া, ১টি কাটার, ২টি ক্রোবার, ৫টি টেটা, ১৩টি টর্চ লাইট, ১টি রূপার চেইন, ২৪ হাজার ৯০০ টাকা ও ৯টি মোবাইল উদ্ধার করা হয়।

বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে র‌্যাব-১১'র উপ-অধিনায়ক মেজর সানরিয়া চৌধুরীর স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারের গোপালদী এলাকার মৃত আবু তালেবের ছেলে আবুল কাশেম (৩৩), ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুরের তেজখালী এলাকার মৃত নীল মিয়ার ছেলে মো. বাবু (২৬), আড়াইহাজারের কাজীপাড়া এলাকার আব্দুল হামিদের ছেলে মো. ওমর ফারুক (২৭), গোপালদি দাইরানি এলাকার মৃত মোস্তফার ছেলে মো. লিটন (২৪), মারুবাদী এলাকার নূর মোহাম্মদের ছেলে মো. সবুজ (২৮), নরসিংদীর মাধবদীর চকড়িয়ার ছেলে মো. দেলোয়ার হোসেন (২৮), আড়াইহাজারের জুকার দিয়া এলাকার মো. আলম ভূঁইয়া রুমন ভূইয়া (২৫), গোপালদী এলাকার মো. আলমের ছেলে মো. আশরাফুল (১৯) ও কলাগাছিয়া এলাকার আব্দুল করিম মিয়ার ছেলে মো. জুয়েল রানা (২২)।

র‌্যাব জানায়, গত ১৯ সেপ্টেম্বর গভীর রাতে ১২ জনের একটি সশস্ত্র ডাকাত দল হাইজাদী ইউনিয়নের সরাবদী আতাদী চকের বাড়ি ও উদয়দী গ্রামের ৮টি বাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটায়। এ ঘটনায় ডাকাতদের মারধরে ৫ জন আহত হয়। ডাকাতদল স্বর্ণালংকার, নগদ টাকা এবং অন্যান্য মালামাল নিয়ে যায়। এতে ধারণা করা যায়, একটি বড় সংঘবদ্ধ ডাকাত দল অত্র এলাকাসমূহতে পরিকল্পিতভাবে ডাকাতি করে আসছে। ডাকাতদের বয়স, ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত অস্ত্রের ধরণ এবং দৃশ্যত দ্রব্যাদি সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ করে র‌্যাবের একটি চৌকস গোয়েন্দা দল গোপনে ডাকাত প্রবণ এলাকায় কিছু সক্রিয় ডাকাত সদস্যকে সনাক্ত করে তাদের গতিবিধি লক্ষ্য করে এবং একই সাথে তথ্য-প্রযুক্তির সহায়তা নেয়।

গ্রেফতারকৃত ডাকাতদলের সদস্যদের স্বীকারোক্তিতে জানা যায় যে, তারা গত ১৯ হাইজানী ইউনিয়নের সরাবদী আতাদী চকের বাড়ি ও উদয়দী গ্রামের ৮টি বাড়িতে ডাকাতির ঘটনার সাথে জড়িত ছিল।

র‌্যাব আরো জানায়, গ্রেফতারকৃত ১নং আসামী মো. আবুল কাশেমের বিরুদ্ধে ১০টি মামলা, ২নং আসামী মো. বাবু এর বিরুদ্ধে ৬টি মামলা, ৩নং আসামী মো. ওমর ফারুকের বিরুদ্ধে ১টি মামলা, ৫নং আসামী মো. সবুজের বিরুদ্ধে ইতিপূর্বে ১টি মামলা রয়েছে।

গ্রেফতারকৃত আসামীরা সংঘবদ্ধ ডাকাত চক্রের সক্রিয় সদস্য বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা স্বীকার করেছেন। এই সংঘবদ্ধ ডাকাত চক্রটি এর আগেও পরস্পর যোগসাজশে পূর্ব-পরিকল্পনামাফিক দীর্ঘদিন যাবৎ আড়াইহাজার থানা এলাকায় বিভিন্ন বাড়িতে এবং আর্থিকভাবে সচ্ছল পরিবারগুলোকে টার্গেট করে পরিকল্পিতভাবে ডাকাতি করে আসছিল। তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

Islams Group
Islam's Group